বাংলাদেশ তাঁত বোর্ড গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৫ জানুয়ারি ২০১৫

বর্তমান সরকারের বিগত ৫(পাঁচ) বছরের সাফল্য

বর্তমান সরকারের বিগত (পাঁচ) বছরের (২০০৯-২০১৩)- বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের গৃহীত কার্যক্রমের বাস্তবায়ন অগ্রগতি প্রতিবেদন নিম্নরূপ ঃ

 

উন্নয়ন প্রকল্পসমূহ

 

>>“সিলেটের মনিপুরী তাঁত শিল্পের উন্নয়নে প্রশিক্ষণ, নক্সা উন্নয়ন, তাঁত বস্ত্র প্রদর্শনী বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন” প্রকল্পঃ 

সিলেটের মনিপুরী তাঁতীদেরকে উন্নত প্রযুক্তিতে বয়ন ও রংকরণ, নক্সা ও প্রিন্টিং বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান, তাঁতীদের উৎপাদিত বস্ত্র প্রাতিষ্ঠানিকভাবে বিপণনের লক্ষ্যে ৩১৬.৭৭ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “সিলেটের মনিপুরী তাঁত শিল্পের উন্নয়নে প্রশিক্ষণ, নক্সা উন্নয়ন, তাঁত বস্ত্র প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন” প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। প্রকল্পের আওতায় ৬০০ জন মনিপুরী তাঁতীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া তাঁতীদের উৎপাদিত বস্ত্র বিপণনের সুবিধার্থে সিলেটের জিন্দাবাজারস্থ ওয়েস্ট ওয়ার্ল্ড শপিং সিটিতে একটি প্রদর্শনী-কাম-বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে।

আলোচ্য প্রকল্পের আওতায় ৭টি জনবলের পদ রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এর সম্মতি পাওয়া গিয়েছে। পরবর্তীতে অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃকও সম্মতি প্রদান করা হয়েছে।

 

>>“রংপুরে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বেসিক সেন্টার প্রদর্শনী-কাম-বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন” প্রকল্প

রংপুর ও পার্শ্ববর্তী জেলাসমূহের তাঁতীদের উন্নয়নের জন্য ৩৮৭.১৭ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “রংপুরে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, বেসিক সেন্টার ও প্রদর্শনী-কাম-বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন” প্রকল্পটি ২০০৮-২০০৯ অর্থ বছরে শুরু হয়ে জুন, ২০১১ মাসে সমাপ্ত হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী মোট ৫০০ জন তাঁতীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

আলোচ্য প্রকল্পের আওতায় ৬টি জনবলের পদ রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এর সম্মতি পাওয়া গিয়েছে। পরবর্তীতে অর্থ মন্ত্রণালয় কর্তৃকও সম্মতি প্রদান করা হয়েছে।

 

>>“তাঁত বস্ত্রের উন্নয়নে ফ্যাশন ডিজাইন,  ট্রেনিং ইনস্টিটিউট একটি বেসিক সেন্টার স্থাপন” প্রকল্প

বাজারের চাহিদা এবং ভোক্তার পছন্দ অনুযায়ী নতুন নতুন ডিজাইন উদ্ভাবন, উদ্ভাবিত নতুন ডিজাইনের উপর তাঁতীদেরকে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে তাদের দক্ষতা ও উৎপাদন বৃদ্ধি, প্রকল্পের আওতায় প্রতি বছর মোট ২৪০০ জন তাঁতীকে আধুনিক ডিজাইন প্রযুক্তির উপর প্রশিক্ষণ প্রদান এবং আকর্ষণীয় তাঁত বস্ত্র উৎপাদনের মাধ্যমে তাঁতীদের আয় ও জীবনযাত্রার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে ৩৫৫৫.৮৬ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “তাঁত বস্ত্রের উন্নয়নে ফ্যাশন ডিজাইন,  ট্রেনিং ইনস্টিটিউট ও একটি বেসিক সেন্টার স্থাপন (১ম সংশোধিত)” প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ প্রকল্পের আওতায় (১) নরসিংদীতে একটি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, (২) টাংগাইল জেলার কালিহাতীতে একটি প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্র, (৩) সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচিতে একটি প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্র এবং (৪) মৌলভী বাজার জেলার কমলগঞ্জে একটি প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্র স্থাপন করা হবে। প্রকল্পের বাস্তবায়ন কাজ চলছে।

প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতি ঃ

 (১) ফ্যাশন ডিজাইন ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, নরসিংদীঃ প্রকল্পের পূর্ত কাজের জন্য গণপূর্ত বিভাগ, নরসিংদী কর্তৃক দরপত্র আহবান এর প্রেক্ষিতে কার্য্যাদেশ প্রদান প্রক্রিয়াধীন আছে।

 (২) কালিহাতি প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্রঃ টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি উপজেলার বল্লা মৌজায় অবস্থিত কালিহাতি বেসিক সেন্টারের খালি জায়গায় একাডেমিক ভবন এবং বেসিক সেন্টার সংলগ্ন অধিগ্রহণকৃত ০.৭৬ একর জমিতে প্রাকটিক্যাল শেড, পুরুষ ডরমেটরী এবং মহিলা হোস্টেলের ভৌত অবকাঠামো নির্মাণের কাজ চলমান রয়েছে। বর্তমানে প্রায় ৭০% পূর্ত নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে।

 (৩) বেলকুচি প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্রঃ ৪টি অবকাঠামো যথা, একাডেমিক ভবন, পুরুষ ডরমেটরী, মহিলা ডরমেটরী ও প্রাকটিক্যাল শেডের পূর্ত কাজ এবং ভূমি উন্নয়নের কাজ চলমান রয়েছে।

 (৪) কমলগঞ্জ প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্রঃ প্রকল্পের আওতায় কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্রের ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষেত্রে জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় এবং দীর্ঘসূত্রিতার কারণে বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের নিজস্ব বেসিক সেন্টার মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জে স্থাপনের প্রস্তাবসহ ডিপিপি এর ২য় সংশোধনী প্রস্তাব বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে।

চলতি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে ৭৭৭.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে ৭৭৬.৫০ লক্ষ টাকা ছাড় করা হয়েছে। মার্চ, ২০১৪ পর্যন্ত ৪৮৯.৬০২ লক্ষ টাকা ব্যয় হয়েছে এবং বাস্তব অগ্রগতি ৩৫%।

 

>> “বিদ্যমান বস্ত্র প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্রের বিএমআরই করণ, মাধবদী, নরসিংদী” প্রকল্প

বর্তমান সময়ে প্রতিযোগিতামূলক বাজারে হস্তচালিত তাঁতে  উৎপাদিত বস্ত্রকে টিকিয়ে রাখার লক্ষ্যে মানসম্মত বস্ত্র উৎপাদন নিশ্চিত করার পাশাপাশি কেন্দ্রটিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করার জন্য  আধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপনের নিমিত্ত মোট ৩২৩২.১৩ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “বিদ্যমান বস্ত্র প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্রের বিএমআরইকরণ, মাধবদী, নরসিংদী” শীর্ষক একটি প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

চলতি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে ১০০.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে ৭৫.০০ লক্ষ টাকা ছাড়ের জিও জারী করা হয়েছে।

প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতিঃ

(১) অনুমোদিত ডিপিপি অনুযায়ী প্রকল্পের পূর্ত কাজ সম্পাদনের জন্য গণপূর্ত অধিদপ্তরকে অনুরোধ করা হয়েছে।

(২) প্রকল্পের অনুকূলে চলতি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে আরএডিপিতে ১০০.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বরাদ্দকৃত অর্থের মধ্য থেকে ১ম-৩য় কিস্তি পর্যন্ত মোট ৭৫.০০ লক্ষ টাকা ছাড়ের প্রস্তাব গত ১৩-০৩-২০১৪ তারিখ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে।

(৩) প্রকল্পের যানবাহন ভাড়ার যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে এবং প্রকল্পের যন্ত্রপাতির স্পেসিফিকেশন তৈরীর বিষয়ে একটি সভা গত ১১-০৩-২০১৪ তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

(৪)  প্রকল্পের পূর্ত কাজের স্থাপত্য নকশা চূড়ান্তকরণ সময় সাপেক্ষ হওয়ায় চলতি অর্থ বছরে যে সকল কাজ স্থাপত্য নকশা ব্যতিরেকে করা সম্ভব সেগুলো জরুরী ভিত্তিতে সম্পাদন করার জন্য গণপূর্ত বিভাগ, নরসিংদী কে অনুরোধ করা হয়েছে।

(৫) প্রকল্পের জনবল নিয়োগের জন্য মন্ত্রণালয়ের প্রশাসনিক অনুমোদন পাওয়া গিয়েছে এবং জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

(৬) প্রকল্পের ডিজিটাল সার্ভে সম্পন্ন হয়েছে এবং মাস্টারপ্ল্যান তৈরীর কাজ চলছে।

(৭)  ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে যে সকল পূর্ত কাজে স্ট্রাকচারাল ডিজাইনের প্রয়োজন নেই সে সকল কাজ দ্রুত সম্পন্ন করণের জন্য গণপূর্ত অধিদপ্তরকে অনুরোধ করা হয়েছে।

 

>> “তাঁত অধ্যূষিত এলাকায় ৩টি সার্ভিস সেন্টার স্থাপন” প্রকল্প

তাঁতীদেরকে বিভিন্ন বয়নপূর্ব ও বয়নোত্তর সেবা প্রদানের লক্ষ্যে দেশের তাঁত অধ্যুষিত ৩ টি এলাকা  যথা- (১) কালিহাতী, টাঙ্গাইল, (২) শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ এবং (৩) কুমারখালী, কুষ্টিয়াতে ৩টি সার্ভিস সেন্টার স্থাপনের জন্য মোট ৫০৫৩.৯০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “তাঁত অধ্যূষিত এলাকায় ৩টি সার্ভিস সেন্টার সহাপন” শীর্ষক প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নের কাজ চলছে।

 চলতি ২০১৩-১৪ অর্থ বছরের সংশোধিত বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীতে ১০০.০০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বরাদ্দকৃত অর্থ থেকে ৫০.০০ লক্ষ টাকা ছাড় করা হয়েছে।

প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতিঃ

(১)  প্রকল্পের আওতায় টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি সার্ভিস সেন্টারের জন্য নির্ধারিত ১.০০ একর ভূমি অধিগ্রহণের  কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন আছে।

(২)  অনুমোদিত ডিপিপিতে প্রকল্পের যাবতীয় পূর্ত কাজ কোন্‌ সংস্থার মাধ্যমে বাস্তবায়ন করা হবে তার কোন উল্লেখ নেই। গত ৩০-১২-২০১৩ তারিখে বাতাঁবোতে অনুষ্ঠিত পিআইসি সভায় প্রকল্পের পূর্ত কাজসমূহ গণপূর্ত বিভাগের মাধ্যমে সম্পন্নের জন্য সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

(৩) পূর্ত কাজ দ্রুতকরণের লক্ষ্যে চলতি অর্থ বছরে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুর সার্ভিস সেন্টার এবং কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী সার্ভিস সেন্টারদ্বয়ের ডিজিটাল সার্ভে ও মৃত্তিকা পরীক্ষার কাজ সম্পন্নের জন্য গণপূর্ত অধিদপ্তরকে পত্র মারফত অনুরোধ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে কুমারখালী সার্ভিস সেন্টারের ডিজিটাল সার্ভে এবং মৃত্তিকা পরীক্ষার কাজ সম্পন করা হয়েছে। শাহজাদপুর সার্ভিস সেন্টারের ডিজিটাল সার্ভের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। চলতি অর্থ বছরেই উক্ত দু’টি কেন্দ্রে মাস্টার প্ল্যান তৈরী, স্থাপত্য নক্সা ও প্রাক্কলন সম্পন্ন করা হবে।

(৪) প্রকল্পের জনবল নিয়োগের জন্য মন্ত্রণালয়ের প্রশাসনিক অনুমোদন পাওয়া গিয়েছে এবং জনবল নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

 

>> বেনারসী পল্লী, মিরপুর প্রকল্প

ঢাকার মিরপুর এলাকায় রাস্তার পাশে, সরকারী জায়গায়, ঘিঞ্জি পরিবেশে বসবাসরত বেনারসী তাঁতীদেরকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পুনর্বাসনের লক্ষ্যে মিরপুরে একটি বেনারসী পল্লী প্রতিষ্ঠা করে ৯০৬টি বেনারসী তাঁতী পরিবারকে আবাস-কাম- কারখানা স্থাপনের জন্য ০৩ শতাংশ করে জমির প্লট বরাদ্দ প্রদানের লক্ষ্যে ২৪৪১.৮০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে জানুয়ারী, ১৯৯৫ হতে জুন, ২০০২ মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য গ্রহণ করা হয়। প্রকল্প এলাকায় অবৈধ বস্তিবাসী কর্তৃক মহামান্য হাইকোর্টে রীট পিটিশন দায়ের করায় প্রকল্পের বাস্তবায়ন কাজ স্থগিত আছে। তবে রীট পিটিশন মামলা নিষ্পত্তির প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।

> রাজস্ব কর্মসূচীসমূহ

 

>>Strengthening and Expansion of Technical  and Vocational Education and Training (SETVET)-শীর্ষক কর্মসূচীঃ

তাঁতী পরিবারের শিক্ষিত বেকার যুবকদের কারিগরী শিক্ষায় শিক্ষিত করে বেকারত্ব দূরীকরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী করা লক্ষ্যে Strengthening and Expansion of Technical  and Vocational Education and Training (SETVET)- শীর্ষক কর্মসূচী বাস্তবায়ন করা হয়েছে। কর্মসূচীটি ৯৫.৭৫ লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে জুলাই, ২০০৯  শুরু হয়ে জুন, ২০১১ এ সমাপ্ত হয়েছে। এ কর্মসূচীটির আওতায় ১৫৪৫ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে অর্থাৎ কর্মসূচীটি সফলভাবে বাস্তবায়িত হয়েছে।

 

>>বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের গতিশীল ওয়েব সাইট তৈরীকরণ অফিস অটোমেশন কর্মসূচী

সরকারের ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া, ই-গভর্ণেনস ও অফিস অটোমেশনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের প্রধান কার্যালয়ে গতিশীল ওয়েব-সাইট প্রতিষ্ঠা করার নিমিত্ত মোট ২৮.০০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের গতিশীল ওয়েব সাইট তৈরীকরণ ও অফিস অটোমেশন কর্মসূচী” ২০১০-১১ অর্থ বছরে সফলভাবে বাস্তবায়িত হয়েছে। 

 

>>“বাংলাদেশ তাঁত শিক্ষা প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, নরসিংদী কেন্দ্রে বিদ্যমান বিভিন্ন অবকাঠামো মেরামত সংস্কারকরণ কর্মসূচী’ঃ

বাংলাদেশ তাঁত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, নরসিংদী কেন্দ্রের দীর্ঘদিনের পুরাতন ও জরাজীর্ণ বিদ্যমান স্থাপনা/ অবকাঠামো মেরামত ও সংস্কার করার জন্য মোট ১৮০.৭৫ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “বাংলাদেশ তাঁত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, নরসিংদী কেন্দ্রে বিদ্যমান বিভিন্ন অবকাঠামো মেরামত ও সংসকারকরণ কর্মসূচী’’ কর্মসূচীটি ডিসেম্বর, ২০১২ মাসে সমাপ্ত হয়েছে।

 

>> “সিলেটের মনিপুরী তাঁত শিল্পের উন্নয়নে প্রশিক্ষণ, নক্সা উন্নয়ন, তাঁত বস্ত্র প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন” শীর্ষক সমাপ্ত প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা সংক্রান্ত কর্মসূচি ঃ

সিলেটের মনিপুরী উপজাতীয় তাঁতীদেরকে  উন্নত প্রযুক্তিতে বয়ন, নক্সা ও রংকরণ বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে মনিপুরী উপজাতীয় তাঁতীদের দারিদ্র বিমোচন ও আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন করার লক্ষ্যে ৪২.১০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে নভেম্বর, ২০১১ হতে এপ্রিল, ২০১৩ মেয়াদে “সিলেটের  মনিপুরী তাঁত শিল্পের উন্নয়নে প্রশিক্ষণ, নক্সা উন্নয়ন, তাঁত বস্ত্র প্রদর্শনী ও বিক্রয় কেন্দ্র স্থাপন (সংশোধিত)” শীর্ষক সমাপ্ত প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা সংক্রান্ত কর্মসূচি গৃহীত হয়েছে। এ কর্মসূচীর আওতায় ৩২০ জন মনিপুরী তাঁতীকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। কর্মসূচীটি এপ্রিল, ২০১৩ এ সফলভাবে সমাপ্ত হয়েছে।

 

>>“বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের মাঠ পর্যায়ের বিদ্যমান বিভিন্ন কেন্দ্রের স্থাপনা/অবকাঠামো মেরামত সংস্কারকরণ”কর্মসূচী

বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের মাঠ পর্যায়ের দীর্ঘদিনের পুরাতন ও জরাজীর্ণ বিদ্যমান বিভিন্ন কেন্দ্রের স্থাপনা/ অবকাঠামোসমূহ মেরামত ও সংস্কার করার নিমিত্ত ৪৭১.৫৭ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ ব্যয়ে “বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের মাঠ পর্যায়ের বিদ্যমান বিভিন্ন কেন্দ্রের স্থাপনা/অবকাঠামো মেরামত ও সংস্কারকরণ” শীর্ষক কর্মসূচীটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। আলোচ্য কর্মসূচীটির অনুকূলে চলতি অর্থ বছরে ১১৪.১৮ লক্ষ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে এবং বরাদ্দকৃত অর্থের মধ্য থেকে ১ম  কিস্তি বাবদ ২৮.৫৪৫ লক্ষ টাকা ছাড় করা হয়েছে। তন্মধ্যে চলতি বিল বাবদ ২৭.৫৬ লক্ষ টাকা পরিশোধ করা হয়েছে। ফলে এ পর্যন্ত (৭৬% + ৫.৮০%)=৮১.৮০% অগ্রগতি হয়েছে। কর্মসূচীটি জুন, ২০১৪ সালে সমাপ্তির জন্য নির্ধারিত আছে। 

 

>>তাঁতীদের জন্য ক্ষুদ্রঋণ কর্মসূচী

প্রকল্প ব্যয় ৫০.১৫৬ কোটি টাকা। বাস্তবায়ন কালঃ জুলাই, ১৯৯৮ থেকে জুন, ২০০৬। এ প্রকল্পের আওতায় দেশব্যাপী ৩০টি বেসিক সেন্টারের মাধ্যমে ফেব্রুয়ারি,১৪ পর্যন্ত মোট ৩৮৭১৯জন তাঁতীকে ৪৯৭৯১টি অচল তাঁত সচল করার  লক্ষ্যে ঘুর্ণায়মান পদ্ধতিতে ৫৬৬০.৯১ লক্ষ টাকা ঋণ প্রদান করা হয়েছে। উক্ত সময় পর্যন্ত মোট আদায়যোগ্য ৫৯১৫.০৮ লক্ষ টাকার মধ্যে ৩৬৫৫.০৫ লক্ষ টাকা আদায় হয়েছে; আদায়ের হার প্রায় ৬২%। উক্ত কর্মসূচির আওতায় সরকারের কাছ থেকে ঋণ খাতে প্রাপ্ত ৪৮৭৪.৪৪ লক্ষ টাকা জুন,২০১৪ এর মধ্যে ফেরৎ প্রদান করতে হবে। উক্ত অর্থের মধ্যে জুন,২০১৩ পর্যন্ত ৩০৩৮.৫২ লক্ষ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা দেয়া হয়েছে।

উক্ত কর্মসূচির আওতায় মার্চ, ২০১৪ পর্যন্ত ৩৮,৮৪৬ জন তাঁতীকে ৫০,০৯২টি অচল তাঁত সচল করার লক্ষ্যে ৫৬৯৪.২৩ লক্ষ টাকার ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। উক্ত সময় পর্যন্ত মোট আদায়যোগ্য ৫৯৩১.০৮ লক্ষ টাকার মধ্যে ৩৬৭৫.২২ লক্ষ টাকা আদায় হয়েছে। আদায়ের হার ৬২%। বর্তমান সরকারের বিগত ১০০ (একশত) দিনে ৮৫.০১ লক্ষ টাকা ঋণ বিতরণ করা হয়েছে। যার মাধ্যমে ৭৫৪টি অচল তাঁত সচল করে অতিরিক্ত ২.১২ লক্ষ মিটার কাপড় উৎপাদন করা সম্ভব হয়েছে। একই সময়ে ঋণ আদায় করা হয়েছে ৫৪.২৪ লক্ষ টাকা।

 

>>তাঁত পেশার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত তাঁতীদের প্রশিক্ষণ প্রদান

বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের নিয়ন্ত্রণাধীন নরসিংদীস্থ বাংলাদেশ তাঁত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট এবং তাঁত প্রশিক্ষণ উপকেন্দ্র-বেড়া, পাবনা এর মাধ্যমে গত ৫ বছরের এসএ তাঁতে বয়ন, বুনন ও বাজারজাতকরণ, সুতা রংকরণ ও বুনন, ডবি ও জ্যাকার্ড তাঁতে বুনন, ব্যয় নিরুপন ও বাজারজাতকরণ, টেক্সটাইল প্রিন্টিং এবং ব্লক ও বাটিক কোর্স সমূহের উপর সর্বমোট ৭৮৯ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।

 

বাংলাদেশ তাঁত শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, নরসিংদীর একাডেমিক শিক্ষাক্রমের আওতায় এইচএসসি (ভোকেশনাল) কোর্সে ৩৭ জন, ডিপ্লোমা-ইন-টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্সে ২৭৬ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়েছে।

 

>>কারিগরী সেবা

তাঁতী সম্প্রদায় ও কাপড় ব্যবসায়ীদের উৎপাদিত কাপড়ের বুননপূর্ব (Pre weaving) এবং বুননোত্তর (Post weaving) কারিগরী সেবা প্রদানের নিমিত্ত সার্ভিসেস এন্ড ফ্যাসিলিটিজ সেন্টার (এসএফসি) কুমারখালী, কুষ্টিয়া, টেক্সটাইল ফ্যাসিলিটিজ সেন্টার (টিএফসি), শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ এবং ক্লথ প্রসেসিং সেন্টার (সিপিসি), মাধবদী, নরসিংদীর মাধ্যমে সুতা টুইস্টিং, সাইজিং, ডাইং, উইভিং, কাপড়ের ক্যালেন্ডারিং, বস্ত্র প্রক্রিয়াকরণ সেবাদি অর্থাৎ ওয়াশিং ডাইং, হাইড্রোএক্সট্রাক্টিং স্টেন্টারিং, ক্যালেন্ডারিং, সিনজিং এবং প্রিন্টিং সেবা প্রদান করা হয়।

 

>>কান্ট্রি অব অরিজিন সনদপত্র প্রদান

হস্তচালিত তাঁতে উৎপাদিত বস্ত্র ও পোশাক সামগ্রী রপ্তানীর ক্ষেত্রে ইপিবি কর্তৃক জিএসপি জারীর নিমিত্ত বিগত ৫ বছরে বস্ত্র ও পোষাক সামগ্রী এবং হোম টেক্সটাইল রপ্তানীর লক্ষ্যে কান্ট্রি অব অরিজিন প্রত্যয়নপত্র প্রদানের প্রতিবেদন নিম্নরূপঃ

অর্থ বৎসর

সনদপত্র ইস্যুর সংখ্যা

পণ্যের রপ্তানী মূল্য (ইউএস ডলারে)

২০০৮-২০০৯

২০৮ টি

১৯,৯৮,৯৩৯.০০

২০০৯-২০১০

২০৯ টি

২৩,৬৮,২৮১.০০

২০১০-২০১১

২৬৭ টি

৭৯,৬৭,০৪৫.০০

২০১১-২০১২

৪৬৮ টি

৯৭,৩২,৪৭৩.০০

২০১২-২০১৩

৫৪৪ টি

১,৭৪,৮৬,০৬১.০০

মোট =

১৬৯৬টি

৩৯,৫৫,২৭,৯৯.০০

 

>> কর্মসংস্থান

বিগত ৫বছরে (২০০৯-২০১৩) বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডের প্রধান কার্যালয়সহ মাঠ পর্যায়ের বিভিন্ন পদে ৫৮জন লোক নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়াও বর্তমান সরকারের ১০০(একশত) দিনে বাংলাদেশ তাঁত বোর্ডে ৪টি পদে ৬(ছয়) জন লোক নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

 

>> আইন প্রণয়ন

Bangladesh Handloom Board Ordinance, 1977 রহিতক্রমে ৯ম জাতীয় সংসদের ২০১৩ সনের ৬৪ নং আইন অনুসারে “বাংলাদেশ তাঁত বোর্ড আইন, ২০১৩” প্রণয়ন করা হয়েছে। “বাংলাদেশ তাঁত বোর্ড আইন, ২০১৩” অনুযায়ী বাংলাদেশ তাঁত বোর্ড কর্মচারী (অবসর ভাতা, আনুতোষিক ও সাধারণ ভবিষ্য তহবিল) প্রবিধানমালা, ২০১৪ প্রণয়ন এবং বাংলাদেশ তাঁত বোর্ড কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা এবং তাঁতী সমিতি বিধিমালা যুগোপযোগীকরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।


Share with :
Facebook Facebook